!!! অসাধারন এক ট্রিকের মাধ্যমে আপনার Mozilla Firefox Browser এর স্পিড দ্বিগুন করে নিন !!

কি অবাক হচ্ছেন তো? আমারও প্রথম প্রথম এ কথা বিশ্বাস হচ্ছিল না কিন্তু যখন নিজের কম্পিউটারে প্রয়োগ করে যখন সাকসেস হয়েছি তখন বিশ্বাস না করে তো আর উপায় নেই।
আমি বেশ কিছুদিন যাবৎ Google Crome ব্রাউসার হিসেবে ব্যবহার করছিলাম এর কারন হল Google Crome অন্য যেকোনো ব্রাউসারের তুলনায় অনেক কম সময়ে যেকোনো পেজ লোড করতে পারে। যারা এখনো ব্যবহার করেননি তাদের আমি Request করছি তারা যেনো একবার হলেও Google Crome ব্যবহার করে দেখেন। তবে Google Crome এর ডাউনলোড করার স্টাইল আমার মোটেই পছন্দের নয় এবং আমার কাছে কেনো যেনো এই ব্রাউজারটাকে সম্পূর্ন মনে হয় না, কিযেনো নাই কিযেনো নাই এরকম লাগে তবে এক্ষেত্রে Firefox Is The Best! তবে একটা সমস্যা হল Firefox এর ব্রাউজিং স্পিড অত্যন্ত কম যা বলার মত না। Google Crome দিয়ে ব্রাউজ করার পর থেকে Firefox ওপেন করতেও মনে চায় না। আমি আমার যে সকল বন্ধু এবং আত্নীয়কে Google Crome ইন্সটল করে দিয়েছি তারা তাদের পূর্বের ব্রাউসার ছেড়ে দিয়ে এখন এটাই ব্যবহার করছে।
হঠাৎ আমার মাথায় প্রশ্ন জাগল যদি Google Crome স্পিডে ব্রাউজ করতে পারে তবে Mozilla Firefox কেনো পারবে না? খুঁজা শুরু করলাম এবং একদিনের মাথায়ই ট্রিকটা পেয়ে গেলাম। তো শুরু করা যাক।
প্রথমে Mozilla Firefox ওপেন করুন। এবার Address bar এ about:config লিখে Enter চাপুন। এখন একটা Warning Report আসতে পারে।যদি আসে তাহলে I will be careful ক্লিক করুন। এবার একটা বিশাল বড় পেজ আসবে এখানে অনেক কিছু লেখা আছে এগুলো সবই সেটিংস! ভয় পাবেন না আমি এতগুলো পরিবর্তন করতে বলছি না আমি আপনাদের গুনে গুনে নয়টা সেটিং পরিবর্তন করতে বলব আপনারা কেবল নামটা খুজে বের করে নিবেন। আমার কথা বিশ্বাস করুন এটা মোটেই কোনো কঠিন কাজ নয়।

1. network.http.max-connection-per-server এ ডাবল ক্লিক করুন এবং 32 লিখে Ok ক্লিক করুন।
2. network.http.max-persistent-connections-per-proxy এ ক্লিক করে 16 লিখে Ok চাপুন।
3. network.http.max-connections এ ক্লিক করে 64 লিখে Ok চাপুন।
4. network.http.max-persistent-connections-per-server এ ক্লিক করে 10 লিখে Ok চাপুন।
5. network.http.pipelining এ ডাবল ক্লিক করুন এতে false থেকে True সিলেক্ট হবে।
6. network.http.pipelining.maxrequests এ ক্লিক করে 200 লিখে Ok চাপুন।
7. network.http.request.max-start-delay এ ক্লিক করে 0 লিখে Ok চাপুন।
8. network.http.proxy.pipelining এ ডাবল ক্লিক করুন এতে false থেকে True সিলেক্ট হবে।
9. network.http.proxy.version এ ক্লিক করে 1.0 লিখে Ok চাপুন।

এবার সর্বশেষ কাজ। যেকোনো জায়গায় Right Mouse ক্লিক করুন এবং New থেকে Integer সিলেক্ট করুন। এখন এটার নাম দিন nglayout.initialpaint.delay এবং Ok চাপুন। এবার 0 লিখে Ok চাপুন। ব্যাস কাজ শেষ। এখন একবার Reload চেপে যেকোনো সাইট এ ব্রাউজ করা শুরু করুন। পরিবর্তন নিজেই টের পাবেন।
এতে করে ব্রাউজিং স্পিড ঠিকই বাড়বে তবে তা Google Crome এর মত হবে না। Google Crome আসলেই অদ্বিতীয় এবং এর স্পীড এর তুলনাই হয় না।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s